1. dailydeshbidesh@gmail.com : admin :
  2. deshbiseh@gmail.com : Adbul Wahid : Adbul Wahid
রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১২:০৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জগন্নাথপুর সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ের পুরাতন মালামাল কম দামে গোপনে বিক্রি করায় জনতা কর্তৃক আটক।। জগনাথপুরে সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা প্রশাসনের প্রেস ব্রিফিং জগন্নাথপুরে পেক আইডি দিয়ে সংক্রান্ত পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপ-প্রচারে এলাকাবাসীর নিন্দা , থানায় জিডি দায়ের ।। জগন্নাথপুরের হবিবপুরে ভূমি সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে গ্রামের মান ক্ষুন্ন করায় প্রতিবাদ সভা।। যুক্তরাজ্য প্রবাসী কে মোবাইল ফোনে হুমকি দিল জার্মান প্রবাসী জগন্নাথপুরে যুক্তরাজ্য প্রবাসীকে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে হয়রানি, এলাকাবাসীর নিন্দা।। জগন্নাথপুরে পুলিশের বিশেষ অভিযানে গ্রেফতার- ৫ জগন্নাথপুরে মিথ্যা মামলাসহ বিভিন্নভাবে হয়রানির প্রতিবাদে গ্রামবাসীর তীব্র নিন্দার ঝড় # জগনাথপুরে মাদ্রাসার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠান সম্পন্ন

জগন্নাথপুরের আধিপত্য নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ নিহত-১ আহত ১০

  • আপডেটের সময় : রবিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২৩
  • ২৭৮

মোঃ আবদুল ওয়াহিদ

জগন্নাথপুর সুনামগঞ্জ থেকে :-

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের সৈয়দপুরে আধিপত্য বিস্তার কে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে সৈয়দ জামাল মিয়া নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন।নিহত সিএনজি চালক জামাল মিয়া (৪০) সৈয়দপুর (ইশানকোনা) গ্রামের সৈয়দ আনাই মিয়ার ছেলে।এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ সহ আহত হয়েছেন প্রায় ১০ জন। আহতরা হলেন সৈয়দ সেলু মিয়া (৫৫) (জখমী আশংকাজনক) সৈয়দ আনহাই মিয়া(৬০) সৈয়দ সিপু মিয়া,(৩০) সৈয়দ হুসাইন মিয়া (৩৪) আনকার মিয়া ও আমিন মিয়া(৫২)শিপু মিয়া (৩০)নাহিদ আহমদ(২০)। আহতদের সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। গত ২৮ এপ্রিল শুক্রবার উপজেলার সৈয়দপুর (ইশানকোনা) গ্রামে রাত ১০ টার দিকে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) শুভাশীষ ধর জগনাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমানসহ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

গতকাল ২৯ এপ্রিল শনিবার সৈয়দ জামাল মিয়ার মরাদেহ জানাযার নামাজ শেষ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। দাফন শেষে জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মিজানুর রহমান নিহত জামালের বাড়িতে যান এবং নিহত জামালের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান এবং
ঘটনার সাথে জড়িত প্রকৃত অপরাধীদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলে তিনি জানন। অপরাধী যত বড় শক্তিশালী হোক না কেন তাদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে। উল্লেখ্য যে গত শুক্রবার গুলিবিদ্ধ জামালকে গুরুতর অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে রাস্তায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত সিএনজি চালক জামাল মিয়া (৪০) সৈয়দপুর (ইশানকোনা) গ্রামের সৈয়দ আনহাই মিয়ার ছেলে।

জানা যায় সিএনজি চালক জামালের স্ত্রী সহ দুই শিশু সন্তান রয়েছে। চার বছরের শিশু কন্যা আফসানা বেগমকে পিতা জামালের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে সে বলে- (আব্বা বাজারে গেছোইন, আমার লাগি মজা আনবা)

শোকে কাতর নিহত জামালের মা কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন- চেয়ারম্যান হাসানের লোক দুইনালা বন্দুক দিয়ে আমার ছেলেকে গুলি করে হত্যা করেছে। আমি এর বিচার চাই এবং খুনিদের ফাঁসি চাই।।

নিহত জামালের চাচা সৈয়দ গৌছ মিয়া জানান আমার ভাতিজা হোসাইনকে হাসানের লোক সৈয়দ হুছবান
প্রথমে মারধর করে পরে হোসাইনকে বাঁচাতে নিহত সৈয়দ জামাল ও সেলু মিয়া,সিপু মিয়া, আনকার মিয়া ও আমিন মিয়া এগিয়ে গেলে হাসানের লোক হুছবান তাদের উপর গুলি করলে তারা পাঁচজন গুলিবিদ্ধ হয়। গুলির বিষয়ে জানতে সৈয়দ হুছবানের
বাড়িতে গিয়ে ঘরটি তালাবদ্ধ ও মোবাইল ফোন বন্ধ। এ বিষয়ে জানতে ৭ নং সৈয়দপুর সারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হাসান এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে নিজামুদ্দিন নামের এক ব্যক্তি ফোন রিসিভ করে বলে চেয়ারম্যান সাহেব এখানে নেই। পরে আবার চেষ্টা করা হলে মোবাইলটি বন্ধ থাকায় যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে সহকারী পুলিশ সুপার (জগন্নাথপুর সার্কেল) শুভাশিষ ধর বলেন এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ পাইনি তবে আসামী গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে কেহ গ্রেফতার হয়নি, কোনো অস্ত্রও উদ্ধার হয়নি! পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এ ঘটনায় মামলা দায়েরের খবর পাওয়া যায়নি।।

পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Comments are closed.

এই ধরনের আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 দৈনিক দেশ বিদেশ
Design and developed By: Syl Service BD